ভালোবাসার মিথ্যা অভিনয় এর হৃদয় ভাঙ্গা গল্প

বর্তমানে সমাজে মানুষ ঠকানো বেশি হচ্ছে। এটা সবচেয়ে বেশি হচ্ছে প্রেমের ক্ষেত্রে। আজকে তেমনি একটা ভালোবাসার মিথ্যা অভিনয় এর গল্প নিয়ে এসেছি আপনারদের মঝে। আশকরি হৃদয় ছুয়ে যাবে গল্পটা।

যুবতী মেয়েটির ধবধবে পেট ধারালো ছুরি দিয়ে কাটতেই বেড়িয়ে এলো একটি কোমল নবজাতকের হাত।

মৃত নবজাতকের হাত দেখে আমি আঁতকে উঠলাম। সার্জন বললেন

” কি হলো পর্শী? ভয় পেলে নাকি? “

” জি স্যার “

” প্রথমবার তাই ভয় পেয়েছো। কিছুদিন পর দেখবে এগুলা স্বভাবিক লাগবে “

” ইশ, পেটে সন্তান নিয়ে মেয়েটা আ’ত্নহ’ত্যা করলো! ওর স্বামী নিশ্চিয়’ই নি’র্যাতন করতো তাই না স্যার? “

সার্জন হেসে বললেন ” স্বামী আসবে কোত্থেকে, মেয়েটা তো অবিবাহিত “

আ’ত্নহ’ত্যার কারণটা আমার কাছে স্পষ্ট হয়ে গেলো।ভালোবাসার দোহাই দিয়ে কেউ তার সাথে শারীরিক সম্পর্ক করে ধোকা দিয়েছে।চোখভর্তি অশ্রু নিয়ে ওখান থেকে বাইরে বেড় হলাম।ফোনটা বেজে উঠলো।ফোনের ওপাশ থেকে জুনায়েদ বললো

” এই বাবু,আজ দেখা করবা? “

” কোথায়? “

” বাবা খুব সুন্দর একটা বাগানবাড়ি কিনেছে।চলো না ওখানে একান্ত কিছুক্ষণ সময় কাটাই “

” একান্ত সময় কাটানো বলতে কি শারিরীক সম্পর্কের কথা বলছো? “

জুনায়েদ হেসে বললো ” আমি তো তোমাকে ভালোবাসি তাই না?আর বলেছিলাম না সামনের মাসে বিয়েও করবো? তাহলে সমস্যা কোথায়? “

আমি ফোনটা কান থেকে সরিয়ে একপলক মৃ’ত নবজাতক শিশুটার দিকে তাকালাম।কি ফুটফুটে সেই শিশু।ফুলের পাপড়ির মতো হাত পা। জুনায়েদ আবারো বললো.

” কি হলো? সমস্যা কোথায় বলবে তো? “

আমি কিছু না বলে ফোন কেটে দিলাম।শিশুটির ছবি তুলে জুনায়েদ কে পাঠিয়ে দিলাম। মেসেজে লিখলাম

” সমস্যা হলো একটা নিষ্পাপ প্রাণ “

আজকের ভালোবাসার মিথ্যা অভিনয় গল্প লিখেছেন আয়েশ ইকবাল রাজিব

আরো পড়ুন প্রবাসীর কষ্টের গল্প

আরো পড়ুন ছলনাময়ী নারী নিয়ে উক্তি

Leave a Comment